লতিফ সিদ্দিকীর মন্ত্রীত্ব বাতিল ও গ্রেফতার দাবীতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে...

ঢাকা, ১ অক্টোবর ২০১৪: খেলাফত মজলিসের যুগ্মমহাসচিব মাওলানা সাখাওয়াত হোসাইন বলেছেন, নাস্তিক লতিফ সিদ্দিকী কোন অবস্থাতেই এ দেশের মাটিতে আর পা রাখতে পারবে না। একে মানুষ আর গ্রহন করবে না। সরকারের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা নাস্তিক- মুরতাদদের এদেশের জনগণ প্রতিহত করতে চায়। সরকার এরকম কোন নাস্তিক- মুরতাদকে...

লতিফ সিদ্দিকীর মন্ত্রিত্ব বাতিল ও গ্রেফতার দাবীতে খেলাফত মজলিসের ২ দিনের...

ঢাকা, ৩০ সেপ্টেম্বরঃ পবিত্র হজ্ব ও মহানবী সা.কে নিয়ে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীর আপত্তিকর ও ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্যের প্রতিবাদে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে লতিফ সিদ্দিকীকে মন্ত্রীসভা থেকে বহিস্কার ও তাকে গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছে খেলাফত মজলিস। সাথেসাথে খেলাফত মজলিসের...

পবিত্র হজ্ব ও মহানবী সা.কে নিয়ে লতিফ সিদ্দিকীর ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্যের তীব্র...

ঢাকা, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৪:সম্প্রতি নিউ ইয়র্কে টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকী ইসলামের অন্যতম মৌলিক স্তম্ভ পবিত্র হজ্ব ও মহানবী সা.কে নিয়ে যে ধৃষ্টতাপূর্ণ ও অবমাননাকর মন্তব্য করেছেন তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে খেলাফত মজলিসের আমীর অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক ও মহাসচিব ড....

জনগণ সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী প্রত্যাক্ষান করেছে

ঢাকা, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৪: বিচারপতিদের অভিশংসনের ক্ষমতা জুডিশিয়াল কাউন্সিলের পরিবর্তে জাতীয় সংসদের হাতে নিয়ে বিচার বিভাগকে আওয়ামীলীগের দলীয় নিয়ন্ত্রনে নেয়ার জন্যে গৃহীত সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর প্রতিবাদে ২০ দলীয় জোট আহুত আজকের দেশব্যাপী সকাল-সন্ধ্যা হরতাল স্বর্ত:স্ফূর্তভাবে সফল করায় দেশবাসীকে...

ফিলিস্তিনের পূর্ণ স্বাধীনতার জন্যে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবেঃ মহাসচিব

গাজায় ইসরাইলী গণহত্যার প্রতিবাদে ঢাকায় খেলাফত মজলিসের বিক্ষোভ মিছিল ঢাকা, ২৯ আগস্ট: খেলাফত মজলিসের মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের বলেছেন, গাজায় কুক্ষাত সন্ত্রাসী ইসরাইল আক্রমন চালিয়ে প্রায় আড়াই হাজার ফিলিস্তিনী নাগরিককে, মুসলমানকে হত্যা করেছে। দুর্ভাগ্যবশত আরবলীগ, আবরবিশ্ব এর বিরুদ্ধে সোচ্চার...

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম


মানুষ আল্লাহর খলিফা ও বান্দা । খেলাফত ও উবুদিয়্যাতের দায়িত্ব যথাযথভাবে আঞ্জাম দেয়ার উপরই মানুষের দুনিয়ার সামগ্রিক কল্যাণ এবং আখেরাতের মুক্তি ও শান্তি নির্ভরশীল।

ইসলাম মানুষের জন্য মনোনীত দ্বীন ও সর্বোত্তম জীবন ব্যবস্থা। ইবলিসী চক্রান্তে সৃষ্ট শোষণ-নির্যাতন, নৈরাজ্য, অনৈক্য-বিভেদ, অন্যায়-অবিচার-অনাচার, যুদ্ধ-সংঘাতে পরিপূর্ণ বিপর্যস্ত পৃথিবীর হতাশাগ্রস্ত মানুষের একমাত্র মুক্তির পথ ইসলাম। সমাজের সর্বস্তরে ইসলামের পূর্ণ প্রতিষ্ঠাই শান্তি ও অগ্রগতি, সুবিচার ও সাম্যের নিশ্চয়তা দিতে পারে।

বর্তমানে উলামা মাশায়েখ ও দ্বীনদার শ্রেণীর মাধ্যমে ইসলামের বিভিন্ন পরিমন্ডলে ইসলামের বাস্তবরূপ তথা খেলাফত ব্যবস্থা কায়েম নেই দীর্ঘদিন ধরে। অথচ মানবতার বিশেষভাবে মুসলিম বিশ্বের মুক্তি, সমৃদ্ধি, সম্মান ও দায়িত্ব গোটা মুসলিম জাতির, বিশেষভাবে উলামা-মাশায়েখ, দ্বীনদার বুদ্ধিজীবী ও রাজনীতিকদের।

বাংলাদেশের ক্ষেত্রে এ সত্য সমভাবে প্রযোজ্য। এখানকার সামাজিক বৈষম্য, অর্থনৈতিক শোষণ, রাজনৈতিক নিপীড়ন, হানাহানি, সাংস্কৃতিক নৈরাজ্য ও দেউলিয়াপনা এবং বৈদেশিক আধিপত্যের অবসানে গোটা সমাজ ব্যবস্থাকে ইসলামের আলোকে পুনর্গঠিত করতে হবে। দেশের পনের কোটি মানুষের কল্যাণ ও সমৃদ্ধির জন্য ইসলামী আদর্শের ভিত্তিতে সমাজের বিপ্লবাত্মক পরিবর্তন তথা একটি ইসলামী বিপ্লব প্রয়োজন। প্রয়োন খেলাফত ব্যবস্থাকে এখানে পুনরুজ্জীবিত করে দেশকে সত্যিকার অর্থে একটি সার্বজনীন কল্যাণ রাষ্ট্রে পরিণত করা। এ শুধু পার্থিব প্রয়োজনেই নয় বরং আখেরাতের মুক্তির জন্যো অপরিহার্য।

বাংলার জমীনে আল্লাহ্র খেলাফত প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে এ দেশের ইসলামী আন্দোলনের ক্ষেত্রে এক নবতর সমন্বয়ধর্মী ও গণভিত্তিক ঐতিহ্য-চেতনা সমৃদ্ধ আপোষহীন নির্ভেজাল ইসলামী আন্দোলন গড়ে তোলার প্রয়োজনে ১৯৮৯ সালের ৮ই ডিসেম্বর খেলাফত মজলিস আত্মপ্রকাশ করেছে।